1. xsongbad@gmail.com : Harry Deb Nath : Harry Deb Nath
  2. tauhidcrt8@gmail.com : tauhidcrt8 :
সোমবার, ০৫ জুন ২০২৩, ০৫:১৯ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
  • Welcome To Our Website...* এন জি ও ‘আরবান সমিতি’ –মাইক্রো ক্রেডিট ফাইনান্সে জরুরী ভিত্তিতে কিছু সংখ্যক মহিলা/পুরুষ মাঠ কর্মী নিয়োগ দেয়া হবে। বয়স ২৫ উর্ধ্ব হতে হবে। আগ্রহী প্রার্থীদেরকে সরাসরি নিম্নোক্ত নাম্বারে যোগাযোগ করুনঃ ০১৩০১০৪১২৮৮  আমাদের অনলাইন নিউজ পোর্টালে বিজ্ঞাপন দিতে চাইলে এই নাম্বারে যোগাযোগ করুনঃ ০১৮১৫-৫৮৭৪১০

৩৫ টাকার আলু ৪৫ টাকায় বিক্রি

প্রতিবেদকের নাম
  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২০
  • ২০৮ বার ভিউ

সরকার নির্ধারিত ৩৫ টাকার পরিবর্তে বিক্রেতারা আলু বিক্রি করছেন ৪৫ টাকা কেজি দরে।

খুচরা বিক্রেতারা বলছেন, পাইকাররা এখনও ৩৫/৩৬ টাকা কেজি দরে আলু বিক্রি করছেন, খুচরায় কীভাবে ৩৫ টাকায় আলু বিক্রি হবে? প্রতি কেজিতে খরচ আছে আরও পাঁচ টাকা।

অন্যদিকে আড়তদাররা বলছেন, কোল্ড স্টোর থেকে সরকার নির্ধারিত দামে আলু ছাড়ছে না। সেখান থেকে নির্ধারিত মূল্যে আলু ছাড়লে আমরাও কম দামে ছাড়তে পারি।

শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) রাজধানীর রাজধানীর শান্তিনগর, সেগুনবাগিচা, ফকিরাপুল, মতিঝিল টিঅ্যান্ডটি কলোনি বাজার, খিলগাঁও বাজার, মালিবাগ, মালিবাগ রেলগেট, রামপুরা এবং মগবাজারে খুচরা বাজারে প্রতি কেজি আলু বিক্রি হচ্ছে ৪৫ টাকা কেজি দরে। আর কারওয়ান বাজার পাইকারি আড়তে প্রতি কেজি আলু বিক্রি হচ্ছে ৩৫ থেকে ৩৬ টাকার মধ্যে।

আলুর দাম নিয়ে খুচরা বিক্রেতারা দুষছেন আড়তদারদের। আড়ৎ ব্যবসায়ী মহল বলছে, তারা কমিশনে পণ্য বিক্রি করেন, হিমাগারে যা দাম রাখা হবে সেই দামেই বিক্রি করা হবে।

মালিবাগ বাজারের খুচরা বিক্রেতা কামাল মিয়া বলেন, পাইকারি বাজারে আলুর দাম ৩৬-৩৭ টাকা রাখা হয়। পাইকারি থেকে খুচরা বাজার পর্যন্ত এক কেজি আলু নিয়ে আসতে পাঁচ টাকা খরচ অতিরিক্ত পড়ে যায়। এতে কীভাবে আমরা ৩৫ টাকায় বিক্রি করব? পাইকারি বাজারে দাম কমলে আমাদের এখানে দাম কমে আসবে।

কারওয়ান বাজারের আড়ত ব্যবসায়ী আফজাল বলেন, আমরা কমিশনে আলু বিক্রি করি। আলুর দাম বাড়াতে আমাদের হাত নেই, আমরা যে দামে পাব সেই দামে বিক্রি করব।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর