1. xsongbad@gmail.com : Harry Deb Nath : Harry Deb Nath
  2. tauhidcrt8@gmail.com : tauhidcrt8 :
স্বল্প ও দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনায় চসিকের কার্যক্রম - Songbadjogot.com
রবিবার, ২৯ মে ২০২২, ১১:১৯ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
  • Welcome To Our Website...* এন জি ও ‘আরবান সমিতি’ –মাইক্রো ক্রেডিট ফাইনান্সে জরুরী ভিত্তিতে কিছু সংখ্যক মহিলা/পুরুষ মাঠ কর্মী নিয়োগ দেয়া হবে। বয়স ২৫ উর্ধ্ব হতে হবে। আগ্রহী প্রার্থীদেরকে সরাসরি নিম্নোক্ত নাম্বারে যোগাযোগ করুনঃ ০১৩০১০৪১২৮৮  আমাদের অনলাইন নিউজ পোর্টালে বিজ্ঞাপন দিতে চাইলে এই নাম্বারে যোগাযোগ করুনঃ ০১৮১৫-৫৮৭৪১০

স্বল্প ও দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনায় চসিকের কার্যক্রম

চট্টগ্রাম মহানগর প্রতিনিধি : ইসমাইল ইমন
  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৪ মার্চ, ২০২২
  • ৩৯ বার ভিউ

চট্টগ্রাম মহানগর প্রতিনিধি : ইসমাইল ইমন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের (চসিক) মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেছেন, স্বল্প ও দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনার মাধ্যমে চসিক-এ বিদ্যমান বহুমাত্রিক সমস্যা সমাধান করে আত্মনির্ভরতা অর্জনের লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।৬ষ্ঠ নির্বাচিত পরিষদের প্রথম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আজ সকালে আন্দরকিল্লা কেবি আবদুস সাত্তার মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে মেয়র এ অভিপ্রায় ব্যক্ত করেন। পাশাপাশি তিনি তাঁর মেয়াদের এক বছরে বিপ্লবতীর্থ চট্টগ্রাম মহানগরীর উন্নয়ন ও সেবামূলক কর্মকান্ড এবং ভবিষ্যতে গৃহকর ও রাজস্ব আদায়ের পরিকল্পনাসহ সার্বিক চিত্র তুলে ধরেন।   

মেয়র বলেন, ‘প্রায় ১ হাজার কোটি টাকার দেনা ও নানাবিধ সমস্যা মাথায় নিয়ে আমি মেয়র-এর দায়িত্ব নিয়ে ছিলাম। আমি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ৩৪তম কর্ণধার হিসেবে ২০২১ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি মেয়রের দায়িত্ব গ্রহণ করি।মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিকল্পনা ও বাস্তবায়ন চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, নগরের ৭৬৯ কি.মি. সড়কের উন্নয়ন, ২২ টি কালভার্ট, ১০ টি গোল চত্ত্বর, ১৪ টি ব্রিজ, ৩৮টি ফুটওভার ব্রিজ এবং একটি ওভারপাস নিমার্ণের লক্ষ্যে বিনা ম্যাচিং ফান্ডে ২৪৯১ কোটি টাকার প্রকল্প একনেকে অনুমোদন লাভ করেছে। ‘বহদ্দারহাট বারইপাড়া হতে কর্ণফুলী নদী পর্যন্ত খাল খনন’ শীর্ষক প্রকল্পের জমি অধিগ্রহণ সংক্রান্ত জটিলতা নিরসন করে খাল খনন কাজ শুরু করার প্রক্রিয়া চলছে। পোর্ট কানেকটিং সড়কের স্থবির উন্নয়ন কাজের ঠিকাদারকে বাদ দিয়ে নতুন ঠিকাদার নিয়োগের মাধ্যমে উন্নয়ন কাজ পুনরায় চালুকরণ এবং কাজের ক্ষেত্রে জবাবদিহিতা নিশ্চিতকরণের মাধ্যমে এক বছরে ৯০ শতাংশ কাজ সমাপ্ত হয়েছে। বিদ্যুৎ উপ-বিভাগের অধীনে নগরীর ৩০ টি সড়কের ৭৬ কিলোমিটার অংশে পোল বসিয়ে এলইডি লাইট স্থাপনের মাধ্যমে আলোকায়ন করা হয়েছে। এতে পোলসংখ্যা ৩৩৯৮ টি এবং এলইডি লাইট সংখ্যা ৪২২১ টি।মেয়র বলেন, পরিচ্ছন্নতা বিভাগের কার্যক্রমে গতিশীলতা আনয়নে ৪১ টি ওয়ার্ডকে ৬ টি জোনে বিভক্তীকরণ; প্রত্যেক জোনে কর্মদক্ষতা বিবেচনায় কর্মকর্তা পদায়ন ও জোন পুর্নবিভাজন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, পরিচ্ছন্নতা ও মশক নিধন কার্যক্রম তরান্বিত করার লক্ষ্যে বিশেষ ক্রাশ প্রোগ্রাম পরিচালনা করা হচ্ছে।রাজস্ব বিভাগের এক বছরের কাজের অগ্রগতি সম্পর্কে রেজাউল করিম বলেন, পৌরকর প্রদান, ট্রেড লাইসেন্স গ্রহণ, নবায়ন ও সংশোধনসহ সকল ধরণের কার্যক্রম অনলাইনে সম্পাদনের লক্ষ্যে ই-রেভিনিউ সিস্টেম চালু করা হয়েছে। নিজের ই-মেইল ও মোবাইল নম্বর দিয়ে খুব সহজেই একজন নাগরিক ই-রেভিনিউ সিস্টেমে তার ইউজার একাউন্ট খুলে হোল্ডিং এবং ট্রেড লাইসেন্স সংক্রান্ত যাবতীয় সেবা অনলাইনে পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে গ্রহণ করতে পারবেন।তিনি বলেন, ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরে পঞ্চবার্ষিকী পুনঃকর মূল্যায়নের স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে। এর ফলে দীর্ঘদিন যাবৎ অনিষ্পন্ন ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের পঞ্চবার্ষিকী মূল্যায়ন কার্যকর সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। কার্যকর করার সময় গৃহকর অবশ্যই রিভিউ বোর্ডের মাধ্যমে যৌক্তিকভাবে চূড়ান্ত করা হবে।নগর পরিকল্পনা সম্পর্কে মেয়র বলেন, নগরীর গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাসমূহের মিডিয়ান ও উভয় পাশের ফুটপাতে রঙকরণ ও সবুজায়ন করা হবে। এছাড়াও ট্রাফিক বিভাগের সাথে পরামর্শক্রমে গুরুত্বপূর্ণ রোডসমূহে রোডমার্কিং ও ট্রাফিক সাইন স্থাপন, বিভিন্ন সড়কে গাড়ি পার্কিং সুবিধা উন্নতকরণ, নগরের বিভিন্ন উন্মুক্ত স্থান, পুকুর, জলাধার, দিঘি ইত্যাদির সৌন্দর্যবর্ধন, সংরক্ষণ ও উন্নয়নের নিমিত্তে ডিপিপি প্রণয়ণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

স্বাস্থ্যসেবার বর্ণনায় মেয়র বলেন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ৪১ টি ওয়ার্ডের ৩৯ লাখ ৩৭ হাজার ৪০ জন নিবন্ধিত নগরবাসীকে কোভিড-১৯ এর টিকা প্রদান করা হয়েছে। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত মেমন মাতৃসদন হাসপাতালের আধুনিকায়ন করা হয়েছে। এখানে চট্টগ্রামের যে কোন প্রাইভেট হাসপাতালের তুলনায় অনেক কম মূল্যে উন্নত সেবা প্রদান করা হচ্ছে। করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ও তৃতীয় ঢেউ প্রতিরোধে লালদিঘি পাড়ে চসিকের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও লাইব্রেরি ভবনের ২য় ও ৩ য় তলায় ৫০ শয্যাবিশিষ্ট আইসোলেশন সেন্টার স্থাপন এবং আইসোলেশন সেন্টার থেকে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা, ওষুধ, খাবার, অক্সিজেন সাপোর্ট এবং এম্বুলেন্স সার্ভিস প্রদান করা হয়েছে।মেয়র চসিক পরিচালিত শিক্ষা সেবা, নগরের সকল কাঁচা বাজারকে পলিথিন মুক্তকরণের উদ্যোগ, চসিক ঠিকাদারদের বকেয়া বিল পরিশোধ, সড়ক বাতিসহ বকেয়া বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ ইত্যাদি বিষয়ে তাঁর এক বছর মেয়াদের হিসাব সংবাদ সম্মেলনে তুলে ধরেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর